Fasting as a diet plan | Health benefits of fasting | Ramadan food

0
321
Fasting as a diet plan Health benefits of fasting Ramadan food

Here I provide Fasting as a diet plan | Health benefits of fasting | Ramadan food. Fasting is the best away for your diet plan.

Fasting as a diet plan

সুস্থ ও অসুস্থ অবস্থায় রোজা

অধ্যাপক ডা, এ বি এম আব্দুল্লাহ, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ব্যাক্তিগত চিকিৎসক.

ইসলামের অন্যতম স্তম্ভ রমজানের রোজা। শুধু আত্মশুদ্ধিরই নয়, এ মাস আত্মনিয়ন্ত্রণেরও। এবারের রমজান মাসটা ভিন্ন পরিবেশে পালিত হচ্ছে । গোটা বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কবলে রয়েছে ৷ তাই এবারের রোজায় মানুষের জীবনযাত্রা কিছুটা পাল্টে গেছে।

জমি বিক্রি বা বাসা ভাড়ার জন্য ফ্রিতে বিজ্ঞাপন দিতে ক্লিক করুন 

রোজা রাখলে অনেকে স্বাস্থ্য নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয় করেন।কিন্তু প্রকৃত পক্ষে, রোজায় কারও স্বাস্থ্য নষ্ট হয়ে গেছে , বা রোজা রেখে ক্ষুধা তৃষায় কাতর হয়ে কারও মৃত্যু হয়েছে। এমন কোনো ঘটনার কথা শোনা যায়নি। রোজা কষ্টকর ইবাদত এবং রোজার দ্বারা শরীরে চাপ পড়ে বলে অনেকেই রোজা ছেড়ে দেন । কিন্তু মনে রাখতে হবে শরিয়তেয় বিধান অনুযায়ী সুনির্দিন্ট কারণ ছাড়া রোজা পরিত্যাগ করা সম্পূর্ণ অনুচিত। রোজা রাথায় প্রাণের আশঙ্কা আছে এ কথাটি কোনো আলেম এবং ইসলামী জ্ঞানসম্পন্ন অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী হতে হবে।

Diesta Plan

গর্ভবতী মহিলার যদি তার গর্ভস্থ সন্তানের ক্ষতির আশঙ্কা থাকে তবে সেও এই মাসে রোজা না রেখে প্রে সুবিধা মতো সময়ে কাজা আদায় করতে পারে। অনেক রোগীই যে কোনো অবস্থায় রোজা রাখতে বদ্ধ’পরিকর। আবার অনেকেই নিজের মতো অজুহাত তৈরি করে রোজা না রাখার যুক্তি খোঁজেন ৷ দীর্ঘস্থায়ী রোগেও রোজা রাখা সম্ভব ৷ রোজার মাসে পেপটিক আলসার রোগীরা খালি পেটে থাকবেন, ডায়াবেটিস রোগীরা কীভাবে রোজা রেখে ইনসুলিন নেবেন, উচ্চরক্তচাপের রোগীর কীভাবে দুই বা তিনবেলা ওষুধ সেবন এসব চিন্তায় অস্থির হয়ে পড়েন ।

আবার কিছু কিছু অসুস্থ ব্যক্তি এমনকি সুস্থ ব্যক্তিও দৃর্বলতা এবং নানারকম দুশ্চিম্ভা দুর্ভাবনার কারণে রোজা রাখতে গড়িমসি করেন। আসলে রোজা রাখলে শরীরে তেমন কোনো বিরূপ প্রভাব পড়ে না । আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের সুচিন্তিত অভিমত হলো, রোজা স্বাস্থ্যের কোনো ক্ষতি তো করেই না বরং শরীর ও মনের উন্নতি লাভে সহায়ক । পেপটিক আলসার, ডায়াবেটিস, হৃদরোপী, বাত ব্যথার রোগীরাও সরাসরি রোজায় উপকার পান । পেপটিক  আলসারের কারণে অনেকেই রোজা ছেড়ে দেন । কিন্তু চিকিৎসা বিজ্ঞানের মতে, পেপটিক আলসারে রোজা বিশেষ উপকারী ৷

Health benefits of fasting

মানুষের পেটই হলো সব কিছুর কেন্দ্রবিন্দু । পেট ঠিক থাকলে সব কিছু ঠিক থাকে। আর পেটে সমস্যা দেখা দিলে স্বাস্থ্যগত সমস্যা দেখা দেয় । সারা বছরে একবার পেটের নিক্ষাশন প্রয়োজন। এক মাস সিয়াম পালন করলে উত্তম রূপে পেটের দূষিত ক্ষতিকর পদার্থের নিক্ষাশন ঘটে। পাকস্থলীতে এক ধরনের উপকারি জীবাণু খাদ্য হজমে সাহায্য করে। বছরেবৃ ১১মাস এসব জীবাণু অনবরত খাদ্য হজমের কাজে লিপ্ত থাকার ফলে দুর্বল হয়ে পড়ে।দীর্ঘ এক মাস রোজার ফলে এ কাজ থেকে বিরত থাকার ফলে এরা শক্তিশালী হয়ে ওঠে। ফলে বাকি ১১ মাস আবার খাদ্য হজমে ভালোভাবে সাহায্য করতে পারে। মানবদেহে চর্বি ও কালেস্টেরলের পরিমাণ বেড়ে গেলে হৃদরোগ, রক্তচাপ, বহুমূত্র রোগসহ নানা জটিল রোগের সৃষ্টি হয়। রোজা চর্বি বা কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমিয়ে শরীরকে বিভিন্ন রোগ থেকে নিরাপদ রাখে।

রোজা মস্তিষ্কের কার্যোক্রম সুষমভাবে পরিচালনায় গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে। অধিক খাদ্য গ্রহনে শরীরের ওপর যেমন চাপ বাড়ায় তেমনি এই চাপ মস্তিষ্কের ওপরও পড়ে। এজন্যই বলা হয় ক্ষুধার্ত উদর জ্ঞানের আধার। রোজায় শরিরের প্রটিনফ্যাট ও শর্করা স্বয়ং পরিচালিত হয়। গুরুত্তপূর্ণ কোষ গুলো পুষ্টি পায়।

ফলে শরীরে উৎপন্ন সূচকগুলো বিভিন্ন কোষে ছড়িয়ে পড়ে । এটি হচ্ছে শরীর বিক্রিয়ার এক স্বাভাবিক পদ্ধতি । রোজা এ পদ্ধতিকে সহজ, সাবলীল ও গতিময় করে । রোজায় শরীরের ক্ষতিকারক টক্সিনের মাত্রা কমে যায় I রোজা অবস্থায় কিডনি ও লিভার বিশ্রান পায়। কিডনির মাধ্যমে শরীরে প্রতি মিনিটে ১ থেকে ৩ মিটার রক্ত সঞ্চালিত হয়। অপ্রয়োজনীয় পদার্থগুলো প্রশ্রাবের সঙ্গে নির্গমন হয় ।  সুস্থ রোগীর লিভার আরও সুষ্ঠুভ্রাবে কার্যক্ষম হয় । তবে লিভারে বা কিডনিতে আক্রান্ত রোগীরা রোজা রাখার আগে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন ।

Fasting as a diet 

Fasting as a diet plan Health benefits of fasting Ramadan food

মানবদেহের বিভিন্ন অঙ্গপ্ৰত্যঙ্গ তার দৈহিক গঠন প্রকৃতি ও স্থিতিশীলতায় অবদান রাখে I কিন্তু এর কাজের একটি সীমাবদ্ধতা আছে ৷ সাধারণত সারা বছর এ গুলো ন্যূনতম বিশ্রামের সুযোগও পায় না ৷ কিন্তু রোজার সময় শরীরের সব অঙ্গপ্রতাঙ্গ দৈনিক প্রায় ৫-৬ ঘণ্টা বিশ্রামের সুযোগ পায়।ফলে পরবর্তী সময়ে এ গুলো আরও শক্তি নিয়ে সুন্দর ভাবে মানবদেহে কাজ করতে পারে । অঙ্গপ্রত্যঙ্গের সুস্থতার পাশাপাশি রোজার সময় মানসিক শক্তি, স্মরণ শক্তি, দৃন্টিশক্তি আধ্যাতিক শক্তিসহ সব কিছুই বেড়ে যায়।

সব মিলিয়ে রোজা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here